নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জে একদিনে ৬ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু…!!

আমির হোসেন :-

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ৬ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।হোমিও দোকানের স্পিরিট পান করে এ অস্বাভাবিক মৃৃৃত্যু ঘটেছে বলে প্রথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা গুলো ঘটে।
এ ঘটনায় আরও কয়েকজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, বসুরহাট বাজারের পান বাজার সংলগ্ন রফিক হোমিও হল দোকানের স্পিরিট বিভিন্ন কোমল পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে পান করে এ ঘটনা ঘটে।

তবে নিহতদের পরিবারের দাবী হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া(হার্ট এ্যাটাক) বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে। মৃৃত ব্যক্তিরা হলেন বসুরহাট বাজারের ব্যবসায়ী রাইটার লিটন,মোহাম্মদ নগর গ্রামের মহি  উদ্দিন,চরকাঁকড়া ইউনিয়নের টেকের বাজার এলাকার আবদুল খালেক,ছিদ্দিকিয়া বাজারের ব্যবসায়ী.মো: সবুজ খান, বসুরহাট পৌরসভা ৮ নং ওয়ার্ডের নুর নবী মানিক ও রবীন্দ্র কুমার দে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,পুলিশ জানার আগেই নিহত ৪ জনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। তবে আরও ২ জনের দাফন এখনো সম্পন্ন হয়নি। পরে পুলিশ খবর পেয়ে রবি লাল রায়’র ও মানিকের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এ দোকানের মালিক জায়েদ ও তার ছেলে প্রিয়ম দীর্ঘ অনেক বছর অনেকটা খোলামেলা ভাবে এ হোমিও হল দোকানে স্পিরিটসহ বিভিন্ন নেশা জাতীয় দ্রব্য বিক্রি করে আসছে। সে এই স্পিরিট বিক্রির টাকায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসের পাশে ফাউন্ডেশন দিয়ে নির্মাণ করছে বহুতল ভবন।

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আরিফুর রহমান মুঠো ফোনে, ৫ জনের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত হয়েছি, এবং স্পিরিট পানে ৫ জনের মৃত্যুর খবর শুনে নিহত ৫জনের বাড়ি পরিদর্শন করি। ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে ৩জনের দাফন সম্পন্ন করা হয়েছ।এ ঘটনায় পুলিশ স্পিরিট বিক্রেতা ডাঃ জাহিদ ও তার ছেলে পিয়মকে গ্রেপ্ততার করা হয়েছে।

 

আর্কাইভ