দল যার যার ভোট নৌকার : ওবায়দুল কাদের

নোয়াখলাী প্রতিনিধি:

নোয়াখালী-৫ আসনে নির্বাচনী গণসংযোগে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ২২ বছরের ক্ষমতার আমলে কোন উন্নয়ন করেননি। ব্যালটে সিল মেরে সকাল ১০টায় ভোট শেষ করে জনগণের সাথে প্রতারণা করেছেন।

ওবায়দুল কাদের শান্তিপূর্ন পরিবেশের কথা উল্লেখ করে বলেন, যে যার দল সমর্থন করতেই পারেন তবে দল যার যার কিন্তু ভোটটা এবার উন্নয়নে প্রতীক নৌকার। বিগত ১০ বছরে যে পরিমান উন্নয়ন করেছি তা অতীতে কেউ করতে পারেনি।

ওবায়দুল কাদের শনিবার সকাল থেকে তাঁর নিজ নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালী-৫ আসনের কোম্পানীগঞ্জের চরকাঁকড়া, চরফকিরা ও চরএলাহী ইউনিয়নে নির্বাচনী পথসভাসহ গণসংযোগ করেন। এসময় তিনি মহান বিজয় দিবসের প্রাক্কালে ১৬নং স্লুইচ এলাকায় তিন শহীদের কবরে ফুল দিয়ে মোনাজাত করে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

ওবায়দুল কাদের চরএলাহী বাজারে গণ সংযোগকালে বলেন, এ এলাকায় এক সময় কিছুই ছিল না। এখন ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, পাকা সড়ক, হাতে হাতে মোবাইল। এসবই বর্তমান সরকারের অবদান। তিনি বলেন, নৌকায় ভোট দিয়ে আরেকবার সুযোগ দেন তাহলে চরএলাহী থেকে চরবালুয়া ক্রসড্যাম করে দিব এবং সমগ্র এলাকায় গ্যাস সংযোগের ব্যবস্থা করবো।

পরে গাঙচিলের পথসভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, এ এলাকাকে আমি কতো ভালোবাসি তা আমি বই লেখার মাধ্যমেই প্রমাণ করেছি। আজকে সেই বই অবলম্বনে সিনেমাও তৈরি হচ্ছে। নামিদামি নায়ক-নায়িকা আসবে এখানে এসবই আপনাদেরকে ভালোবাসি বলেই হচ্ছে।

তিনি সবার কাছে নৌকার জন্য ভোট চেয়ে বলেন, মওদুদ সাহেব সকাল ১০টায় ভোট শেষ করলেও আমি জোর করে ভোট নেব না। শান্তিপূর্ণভাবে যে যার দল করেন, সেই পরিবেশ আমি তৈরি করে দেব, তবে ভোটটা এবার উন্নয়নের মার্কা নৌকায় দিতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল হক নাজিম, চরকাঁকড়া আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি মাহবুবুর রহমান আরিফ, চরফকিরা ইউপি চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন লিটন, চরএলাহী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবদুর রাজ্জাক, চরএলাহী আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি আবদুল গণি প্রমুখ।