বিল পরিশোধ না করায় বিএনপির গুলশান অফিসের ‘ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন’

নিউজ ডেস্ক : বিগত নয় মাস ইন্টারনেট বিল পরিশোধ না করায় বিএনপির গুলশান অফিসের ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন গুলশানে ডিজি জাদু ব্রডব্যান্ড লিমিটেড এর মেইনটেনেন্স কর্মকর্তা আব্দুর সাত্তার।

আব্দুর সাত্তার বলেন, বিএনপির গুলশান কার্যালয়ে বিগত ২ বছর যাবৎ ইন্টারনেট সেবা দিয়ে আসছে ডিজি জাদু ব্রডব্যান্ড লিমিটেড। কিন্তু গত নয় মাস যাবৎ উক্ত অফিস থেকে কোন ইন্টারনেট বিল পরিশোধ করা হয়নি। বিল বাবদ ৩০ হাজার টাকা বকেয়া রয়েছে। বিল চাইতে গেলেই নানা প্রকারের হুমকি ধামকি দিয়ে আমাদের কর্মীদের বের করে দেয় বিএনপি অফিসের কর্মকর্তারা। তাই বাধ্য হয়ে বিএনপির গুলশান অফিসের ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে।

বিষয়টি অমানবিক বলে আখ্যায়িত করে গুলশান থানা আওয়ামী লীগ সহ-দপ্তর সম্পাদক মো: হানিফ সরকার বলেন, বিএনপির মত বড় একটি রাজনৈতিক দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের মত গুরুত্বপূর্ণ অফিসের ইন্টারনেটের পাওনা বিল নিয়ে হুমকি দেওয়াটা অগ্রহণযোগ্য। এটি ভীষণ লজ্জাজনক। ক্ষমতায় আসার আগেই যদি বিএনপি সামান্য ৩০ হাজার টাকার জন্য হুমকি দেওয়া শুরু করে তবে ক্ষমতায় এলে দেশের কী পরিস্থিতি হবে তাই নিয়ে চিন্তিত আমি।

হানিফ সরকার আরো বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এর সুফলভোগ করে বিএনপি সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা প্রকারের অপপ্রচার করেই চলেছে। অবাক লাগে, সরকারের দেওয়া সুযোগ সুবিধা গ্রহণ করে সরকারের বিপক্ষে ক্রমাগত কাজ করছে বিএনপি। বিএনপি যে কখনোই দেশ ও জনগণের উন্নয়নের জন্য কাজ করে না, এটাই তার প্রমাণ।

তবে বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, গুলশান অফিসে তেমন কোনো মানুষ থাকে না বিধায় আমরা উক্ত অফিসে ইন্টারনেট খুব একটা ব্যবহার করি না। যার কারণেই আমরা ইন্টারনেট বিল প্রদান করিনি। এটা বড় কোনো বিষয় নয়। বিষয়টির ইতিমধ্যেই সমাধান হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করার কিছুই নেই।

শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :