মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের ওপর হামলা: কাদের

 

মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিনা উস্কানিতে পুলিশের উপর হামলা নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র।বুধবার বিকেলে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশ আজ দুটি ভাগে বিভক্ত, এক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাধীনতা প্রিয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনার শক্তি। অন্য ধারায় রয়েছে, পাকিস্তানপন্থী মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি।এর আগে দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের  সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। ধাওয়া-পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে নয়াপল্টন। দলটির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পুলিশের একটি পিকআপভ্যানে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে তৃতীয় দিনের মতো আজ সকাল থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে বিএনপি। সেই মনোনয়ন নিতে সকাল থেকে মিছিল-ব্যানার নিয়ে নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে জড়ো হতে থাকেন মনোনয়নপ্রত্যাশীরা। তাদের সঙ্গে ছিলেন অনেক সমর্থক।
অপরদিকে, সকাল থেকে নয়াপল্টনের কার্যালয়ের সামনে ছিলেন বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য। যানবাহন চলাচলের জায়গা করে দিতেই পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।
বেলা সাড়ে ১১টার পর নয়াপল্টনের সামনের রাস্তা কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। একপর্যায়ে ওই সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দুপুর ১টার দিকে পুলিশ সদস্যরা গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের রাস্তা ছেড়ে দিতে বলেন। এসময় তাদের সঙ্গে পুলিশ সদস্যদের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে পুলিশ সদস্যরা বিএনপির নেতাকর্মীদের লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। তখন নেতাকর্মীরাও পুলিশের ওপর হামলা চালায়। শুরু হয় দু’পক্ষের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া। পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর কাঁদানে গ্যাসের শেল ছুড়ে। নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।

আর্কাইভ