মন্দিরে মন্দিরে হামলার হুমকি, জেএমবি নাকি বিএনপি জামায়াতের চাল?

 

আসছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ উৎসব দুর্গাপূজা। মন্দিরগুলোতে চলছে দিনরাত উপাসনা। দেশ ও জাতির শান্তি কামনা করে চলছে উপাসনা। দেশে এখন বিরাজ করছে এক উৎসবমুখর পরিবেশ। কারণ, আমরা বিশ্বাস করি ধর্ম যার যার কিন্তু উৎসবটা সবার। কিন্তু কিছু লেবাসধারী মুসলমানের কারণে আজ আমরা বিশ্বজুড়ে ঘৃণিত ।

মোবাইল ফোনের ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে এই উৎসবকে ঘিরে। একটি মেসেজ বা বার্তা ভাইরাল হতে শুরু করেছে ইতোমধ্যেই। যেখানে জেএমবি কর্তৃক ঘোষণা দেওয়া হয়েছে দেশের কিছু হিন্দু অধ্যুষিত এলাকার মন্দিরে চালানো হবে রিমোট বোমা হামলা। আসলেই কি জেএমবি নাকি এটা বিএনপি-জামায়াতের সাজানো চক্রান্ত; শুধুমাত্র দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য? আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নানা রকম ছক কাটছে স্বাধীনতা বিরোধী কিছু গোষ্ঠী। অতীতের মত এবারেও আঁতাত যোগান দিচ্ছে বিএনপি জামায়াত।

বর্তমান সরকার জঙ্গিবাদকে কখনো হালকাভাবে নেয়নি। কঠোর হস্তে দমন করে এসেছে। এবারো তার ব্যতিক্রম হবে না। দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে নেওয়া হয়েছে দেশব্যাপী কঠোর নিরাপত্তা। জনগণের প্রতি পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যদি কোন সন্দেহজনক কিছু চোখে পরে তাহলে সাথে সাথে নিকটবর্তী থানায় বা কর্মরত পুলিশকে জানানোর জন্য। আর সদা সতর্ক থাকার জন্য। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সদা প্রস্তুত পুলিশ। কারণ, বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, জঙ্গিবাদের কোন ঠাঁই নাই।