রায় প্রত্যাখ্যান করে গোপনে নাশকতার পরিকল্পনা বিএনপির, বিশেষজ্ঞদের শঙ্কা প্রকাশ

নিউজ ডেস্ক: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড এবং তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। যদিও এ রায় প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। যা আদালত অবমাননার সমতুল্য বলে মনে করছেন বিশিষ্ট আইনজীবী তুরিন আফরোজ। শুধু আদালত অবমাননাই নয়, কৌশলে রায় প্রত্যাখ্যান করে দেশব্যাপী বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির পরিকল্পনা করেছে বলে বিশেষ একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। এরইমধ্যে রায় ঘোষণার পরে আদালত প্রাঙ্গণে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। এছাড়া বগুড়ায় একটি বাসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। এতে আহত হয়েছেন তিনজন সাধারণ মানুষ। অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় তিনটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে বিএনপির কর্মীরা। এমন প্রেক্ষাপটে তারেক রহমানের রায়কে ঘিয়ে দেশব্যাপী আরো ভয়ংকর পরিস্থিতি সৃষ্টির আশঙ্কা করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

অথচ ৯ অক্টোবর দলীয় কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে রিজভী আহমেদ বলেছিলেন, আদালত যে রায় দেবে তা মেনে নেবে বিএনপি। কিন্তু দেশের বিভিন্ন জায়াগায় ককটেল বিস্ফোরণ ও রায় মেনে না নিয়ে বিএনপি একটি রাজনৈতিক প্রতিশোধের আভাস দিলেন বলে মনে করছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষক বশির আহমেদ। তিনি বলেন, মূলত সরকারকে ধাঁধাঁয় ফেলে তারেক রহমানের অপরাধ ঢাকতেই রায়ের পর দেশব্যাপী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে রায় প্রত্যাখ্যানসূলভ বক্তব্য দিয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এবিএম মফিজুল ইসলাম পাটোয়ারী শঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, আওয়ামী লীগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর ভয়ংকর প্রতিশোধ নিতে এমন বক্তব্য দিয়েছে বিএনপি।

অধ্যাপক বশির আহমেদ গ্রেনেড হামলার রায়ের বিষয়ে আদালতের আদেশ না মেনে নেওয়াকে ষড়যন্ত্র এবং ভয়ংকর পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বিবেচনা করছেন। তার মতে, গ্রেনেড হামলার রায়ে তারেক রহমান দোষী প্রমাণিত হয়েছেন এবং বিএনপির রাজনীতিতে এর ব্যাপক প্রভাব পড়বে, এটি বিএনপির প্রত্যেক নেতাই জানেন। বাংলাদেশের রাজনীতিতে একক নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে পরিস্থিতির জালে ফেসে গিয়েছেন তারেক। এ থেকে উত্তরণের জন্য রায়কে ঘিরে বিএনপির ষড়যন্ত্র এবং ভয়ংকর পরিকল্পনা রয়েছে। বিভিন্ন মিডিয়ায় দেখলাম বগুড়ায় বিএনপি নেতারা পেট্রোল বোমা ছুঁড়ছেন। নারায়ণগঞ্জেও বোমা ফাটানো হয়েছে।

এদিকে রায় নিয়ে নাশকতার সব পরিকল্পনা রুখে দিতে পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন- ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়কে ঘিরে যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। রায়কে কেন্দ্র করে কোনও নৈরাজ্য বরদাস্ত করা হবে না।