ইন্টারপোলের প্রধান নিখোঁজ, সন্দেহের তালিকায় তারেক রহমান

নিউজ ডেস্ক: পুলিশের আন্তর্জাতিক সংস্থা ইন্টারপোলের প্রধান মেং হংওয়েই নিখোঁজ হয়েছেন। ফ্রান্সে সংস্থার সদরদপ্তর থেকে চীন যাওয়ার পথে তিনি নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় বিশ্বের কুখ্যাত সন্ত্রাসীদের সন্দেহের তালিকায় রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। এই তালিকায় রয়েছে তারেকের আস্থাভাজন দাউদ ইব্রাহীমসহ তার নিজের নামও।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ সেপ্টেম্বর মেং হংওয়েই চীনের উদ্দেশ্যে ফ্রান্স ত্যাগ করেন। কিন্তু তার স্ত্রী সদর দপ্তরে যোগাযোগ করে জানান, তার স্বামী মেং হংওয়েই এর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। দুই বছর আগে ইন্টারপোলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন মেং।

ইন্টারপোল প্রধানের নিখোঁজের ঘটনায় দাউদ ইব্রাহীম এবং তারেকের নাম আসা প্রসঙ্গে ইন্টারপোল বলছে, যেহেতু ইন্টারপোলের মাধ্যমে তারেক রহমানকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার জোর প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছিলো এবং এই তৎপরতায় জোর ভূমিকা রাখছিলেন ইন্টারপোলের প্রধান মেং হংওয়েই, ফলে প্রতিশোধ প্রবণ হয়ে তারেক রহমান এমন ঘটনা ঘটাতে পারে। এমন দুর্ধর্ষ ঘটনা ঘটাতে তারেকের আস্থাভাজন মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহীমের সহযোগিতা নেয়া হয়েছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। সন্দেহ থেকে বাদ যাচ্ছে না আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস। যাদের সঙ্গে তারেক রহমানের হট কানেকশন রয়েছে- তা বিগত সময়ে বহুবার প্রমাণিত হয়েছে।

এদিকে সূত্র বলছে, আগামী ১০ অক্টোবর ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় হওয়ার কথা রয়েছে এবং সেখানে তারেক রহমান দণ্ডিত হবেন এমনটা ধারণা করছেন রাজনীতিবিদরা। অন্যদিকে তারেক রহমানের ঘাড়ে ঝুলে আছে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাজা। সবমিলিয়ে নতুন মামলায় দণ্ডিত হলে তাকে দেশে ফিরে শাস্তি ভোগ করতে বাধ্য করা হবেই। আর এর জন্য ব্যবহার করা হবে ইন্টারপোলকে। ফলে ইন্টারপোলের স্থিতিশীলতা নষ্ট করে পরিস্থিতি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতেও এমন কাজ করে থাকতে পারে তারেক রহমান।

ইন্টারপোল সূত্রে জানা গেছে, মেং হংওয়েই নিখোঁজের ঘটনায় সন্দেহভাজন সকল সন্ত্রাসীদের বিষয়ে জোর তদন্ত চলছে। অচিরেই রহস্য ভেদ করে আসল সত্য বেরিয়ে আসবে।