সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা: থাকছে না বিতর্কের সুযোগ

আজ মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা সম্পূর্ণ বিতর্কহীন ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতি বছর মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস, পরীক্ষা শুরুর সাথে সাথে হল থেকে প্রশ্নপত্র বাইরে চলে আসা সহ নানা বিতর্ক কিছুতেই পিছু ছাড়ছিল না। পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে ও পরে এ নিয়ে চলতো আলোচনা সমালোচনাসহ নানা তর্ক-বিতর্ক। তবে এবারের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের মতো কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে রাজধানীসহ সারা দেশের ১৯টি কেন্দ্রে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয়বার ভর্তিচ্ছুকদের ক্ষেত্রে ৫ নম্বর কাটা হবে। শিক্ষার্থীরা সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে, পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষার্থীসহ কর্তব্য পালনকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী মোবাইল ফোনসহ কোনো ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ও ঘড়ি নিয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় নি। এ বছর ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ৬৫ হাজার ৯১৯ জন শিক্ষার্থী আবেদন করে। দেশে সরকারি ৩২টি মেডিকেল কলেজের মোট আসন সংখ্যা ৪ হাজার ৬৮টি।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, বিতর্কহীন ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সাফল্যের নেপথ্যের কারণ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কড়া নজরদারি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার। প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, ছাপাখানায় প্রশ্ন ছাপা, বিশেষ ডিভাইস লাগিয়ে প্রশ্নপত্র পরীক্ষার কেন্দ্রে পাঠানো আবার পরীক্ষা শেষে একই ডিভাইস সম্বলিত ওএমআর শিট উত্তরপত্র স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানো এসব ধাপে ছিল আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার।

গত সোমবার সচিবালয়ে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত কমিটির বৈঠক হয়।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষাকে সর্বোচ্চ কঠোর ও নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকায় প্রশ্নফাঁসের কোনো ঘটনা ঘটেনি। তাই এ পরীক্ষা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টির হওয়ার কোনো সুযোগ এবার আর থাকছে না।

এদিকে, এবারের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের মতো কোন অনাকাঙ্খিত

ঘটনা না ঘটায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।