তারেককে উপেক্ষা করে নিউইয়র্ক গেলেন ফখরুল     

একাদশ জাতীয় নির্বাচন ও দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসের আমন্ত্রণে নিউইয়র্ক গিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার সঙ্গে রয়েছেন দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল। জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণে নিউইয়র্ক যেতে মানা করেছিল দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। শেষ পর্যন্ত তারেক রহমানকে উপেক্ষা করে ফখরুল এখন নিউইয়র্কে।

ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কে আমন্ত্রণ না দিয়ে দলের মহাসচিবকে আমন্ত্রণ দেওয়াকে সন্দেহের চোখে দেখছে তারেক। সে কারণে ফখরুলকে নিউইয়র্ক যেতে নিষেধ করেছিল। নিষেধ অমান্য করে ফখরুলের নিউইয়র্ক যাত্রা চোখে চোখে রাখতে তারেক দু‘জন প্রতিনিধি পাঠিয়েছে।

বিএনপি সূত্র থেকে জানা গেছে, জাতিসংঘের পক্ষ থেকে শুনানিতে অংশ নিতে শুধু মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকেই আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে। কিন্তু তার সঙ্গী হয়েছেন বিএনপির ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাবিথ আউয়াল। বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য হলেও তাবিথ আউয়াল সরাসরি বিএনপির রাজনীতি থেকে কিছুটা দূরের বলা চলে। জাতিসংঘে বাংলাদেশ নিয়ে শুনানিতে তাবিথের মির্জা ফখরুলের সঙ্গী হওয়ার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

লন্ডন বিএনপির সূত্রগুলো বলছে, আসলে মির্জা ফখরুলকে পাহারা দিতেই তাবিথ আউয়ালকে সঙ্গে পাঠানো হয়েছে। আবার লন্ডন থেকে নিউইয়র্কে গিয়েছেন বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সচিব হুমায়ুন কবির। তাবিথ ও হুমায়ূন কবির মূলত নিউইয়র্ক যাচ্ছেন তারেক জিয়ার প্রতিনিধি হিসেবে। বিএনপি মহাসচিবের সাম্প্রতিক অনেক কর্মকাণ্ডই তারেক পন্থীদের বিরুদ্ধে যাচ্ছে। তাকে নিয়ে প্রচণ্ড অবিশ্বাস এখন তারেক পন্থী বিএনপি শিবিরে। আর তাই নিউইয়র্কে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে চোখে চোখে রাখতেই নিউইয়র্কে যাচ্ছেন তাবিথ ও হুমায়ূন কবির। জাতিসংঘে বিএনপি মহাসচিব কী করছেন, কী বলছেন- তারই খবর রাখবেন দুজন।

মির্জা ফখরুলের প্রতি অবিশ্বাসের কারণে তারেক তাকে নিউইয়র্ক যেতে বারণ করেছিল।