অনশনের নামে তামাশা করতে কে বলল আপনাকে?’- ফখরুলকে তারেক

 

বরাবর শুনে আসছি মানুষ কোন একটা দাবি পুরণের জন্য আমরণ অনশন করে। যতক্ষণ না দাবি আদায় হয়, ততক্ষণ অনশনে থাকে। কিন্তু বর্তমানে দেখছি সকালের খাওয়া দাওয়া শেষে ভরা পেটে লোক দেখানোর জন্য জমায়েত করা, আবার দুপুরে যখন ক্ষুদা লাগে তখন ঘরে চলে যাওয়াকে ‘অনশন’ এর নাম দেয়া হচ্ছে। বলা বাহুল্য, এমন অনশন বাংলার প্রতিটা মানুষ নিত্য দিন করে থাকে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবি এবং কারাগারে আদালত স্থাপনের প্রতিবাদে ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার দুই ঘণ্টার প্রতীকী অনশন পালন করতে চায় দলটি। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে। এই অনশনকে তামাশা হিসেবে দেখছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

কারাবন্দী খালেদার মুক্তির আন্দোলন ও নানা কর্মসূচীর কথা নেতা কর্মীরা বিভিন্ন সময় বললেও বাস্তবে তাদের আন্দোলনের মাঠে দেখা যায় নি। সেই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে এই অনশন কর্মসূচী। তবে দুই ঘন্টার এই অনশনকে তামাশা হিসেবে দেখছে খোদ দলের নেতারাই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক নেতা জানায়, ‘অনশনের কথা শোনার পরপর তারেক রহমান ফোন করে মির্জা ফখরুলকে বলেন, ‘‘অনশনের মানে বুঝেন আপনি? দুই ঘন্টা না খেয়ে থাকলেই কি অনশন হয়? মানুষ এমনিতেই ৩ ঘন্টা পরপর খায়। দুই ঘন্টা অনশন করলে দেশের মানুষ এটাকে তামাশা ছাড়া আর কিছূ মনে করবে না। অনশনের নামে তামাশা করতে কে বলছে আপনাকে? পারলে কঠোর আন্দোলন করে চেয়ারপারসনের মুক্তি নিশ্চিত করেন। আর তামাশার অনশন বন্ধ করেন”।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজায় সাত মাস ধরে কারগারে আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার মুক্তির জন্য নেতাকর্মীরা আন্দোলন কর্মসূচীর কথা বললেও আন্দোলন করতে ব্যর্থ হয়েছে।

ঢাকায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন প্রাঙ্গন অথবা গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে বুধবার সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত প্রতীকী অনশন করার পরিকল্পনা নিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র নেতাদের একাংশ।