বিএনপির জনসভায় তারেকের মামলার নিষ্পত্তির দাবি নেই কেন?

বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করে দলটি। একটি অস্থায়ী মঞ্চে বিএনপির নেতারা আসন গ্রহণ করেন। দুপুর ২টায় জনসভার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। জনসভায় খালেদার মুক্তির বিষয়টি বারবার প্রকাশ পেলেও তারেকের মামলার নিষ্পত্তি নিয়ে মুখ খুলেনি কেউ।

এই জনসভায় ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার মামলা প্রসঙ্গটি গুরুত্ব পায়নি বলে নেতাকর্মীদের প্রতি ক্ষুব্ধ তারেক। জনসভার পরপরই তারেক বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্তত দু’জন সদস্যকে ফোন করে তার ক্ষোভের কথা জানান।

প্রথমেই তারেক কথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর সঙ্গে। তারেক খসরুকে বলেন, ‘আপনারা তো পুরনো কথাই বললেন। নতুন কিছু তো বললেন না। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা নিয়ে কিছু বললেন না। ঐ রায়ই হবে রাজনীতির টার্নিং পয়েন্ট, অথচ কেউ বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে বললো না।

পরে তারেক জিয়া বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সঙ্গেও এ নিয়ে কথা বলেন। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামালা মামলার রায় নিয়ে অনতিবিলম্বে কর্মসূচি দেওযার নির্দেশ দেন তারেক জিয়া।

বিএনপির নীতিনির্ধারক পর্যায়ের এক নেতা জানায়, দলের সিনিয়র নেতাদের অবমূল্যায়ন, নতুনদের বেশী সুযোগ দেওয়া, দলের বিভিন্ন বিষয়ে তারেকের সাথে সিনিয়র নেতাদের সিদ্ধান্তের অমিল, নেতাদের সাথে খারাপ আচরণের কারণে সিনিয়র নেতারা তারেককে পছন্দ করে না। তাই তারেকের নেতৃত্ব চাননা। আর সে কারণেই সিনিয়র নেতারা তারেকের মামলার নিষ্পত্তির বিষয় নিয়ে কথা বলতে রাজি নন।

উল্লেখ্য, অর্থ পাচারের দায়ে তারেক রহমানকে ২০১৬ সালে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে হাইকোর্ট। তার বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো হলো- টঙ্গীতে প্রস্তাবিত ৮০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন নির্মাণ কাজ পাইয়ে দিতে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ২০ কোটি ৪১ লাখ ২৫ হাজার ৮৪৩ টাকা ঘুষ নেন মামুন। ওই টাকা পরে সিঙ্গাপুরের সিটি ব্যাংকে মামুনের অ্যাকাউন্টে পাচার করা হয়, যার মধ্যে ৩ কোটি ৭৮ লাখ টাকা খরচ করেন তারেক।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার মামলার বিচার শেষ প্রান্তে। আগামী ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বর সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে এই মামলার আইনি কার্যক্রম শেষ হবে। এরপর আদালত রায়ের দিন ধার্য করবেন। এই মামলার প্রধান আসামি তারেক জিয়া। রাষ্ট্রপক্ষ তার সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়েছে।

সর্বশেষ, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় তারেক রহমানকে ১০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। তারেক রহমান ২০০৮ সাল থেকে যুক্তরাজ্যে পলাতক।