রাজধানীতে অবাধে পশুর আমদানি নিশ্চিত করায় প্রশংসিত সরকার

নিউজ ডেস্ক: কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে সারাদেশ থেকে রাজধানীতে পশুর আমদানি সুষ্ঠু ও সচল রাখতে সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। নিরাপদে পশু ব্যবসায়ী এবং বিক্রেতারা যেন বেচা-বিক্রি করে নিরাপদে নিজ নিজ এলাকায় ফিরে যেতে পারে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নিরাপদে রাজধানীতে পশু সরবরাহ নিশ্চিতকল্পে দিনের বেলা ট্রাক-ট্যাংক লরিসহ কাভার্ড ভ্যান চলাচল নিষিদ্ধ করেছে সরকার। সরকারের ইতিবাচক পদক্ষেপে ঈদকে সামনে রেখে সুফল পাচ্ছেন ছোট-বড় পশু ব্যবসায়ীরা।ঢাকা মহানগর পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সারাদেশ থেকে কোরবানি পশুর আমদানি অব্যাহত রাখতে পুলিশকে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। পশুবাহী গাড়ির সামনে ব্যানার টাঙানোর জন্য নির্দেশনা দেওয়ার পর পরিবহন ব্যবসায়ীরা সেই নির্দেশনা যথাযথভাবে মান্য করছেন। পথে কোনো ধরনের ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে না পশু ব্যবসায়ী ও বিক্রেতাদের। পরিবহন থেকে শুরু করে বিক্রির সব জায়গায় কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সরকার। রাজধানীর পশু হাটগুলোতে বিশেষ করে গাবতলী, বাদামতলী, আফতাবনগর, যাত্রাবাড়ী, মোহাম্মদপুর বছিলা হাট, আগারগাঁ তালতলা পশুর হাট পরিদর্শন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। পাশাপাশি সরকারের তরফ থেকে এসব হাটে পশু চিকিৎসক, সহকারী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে পশুর সুস্থতা নিশ্চিত করার জন্য।

এছাড়া পশু ব্যবসায়ী এবং ক্রেতারা যাতে করে লেনদেনের সময় জাল টাকা বিস্তার চক্রের শিকার না হয় সেজন্য জাল টাকা শনাক্তকরণ মেশিন স্থাপন করা হয়েছে হাটগুলোতে। পশু হাটগুলোতে পর্যাপ্ত পানি, শৌচাগার ও ক্রেতা-বিক্রেতাদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করেছে কর্তৃপক্ষ। পকেটমার, প্রতারক, চাঁদাবাজদের অত্যাচার রুখতে পুলিশ ও র‌্যাব নিয়মিতভাবে পশুর হাটগুলোতে টহল দিচ্ছে।

গাবতলী পশু হাটে সরকারের সুব্যবস্থায় খুশি হয়ে সাতক্ষীরা থেকে আগত ছাগল ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম ছাত্তার বলেন, সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ দিতে চাই। সাতক্ষীরা থেকে বিশটি ছাগল নিয়ে এসেছি গাবতলী হাটে। পথিমধ্যে এক টাকাও চাঁদা দিতে হয়নি কাউকে। ট্রাফিক পুলিশ পথে পথে সাহায্য করেছে। আমার মতো ব্যবসায়ী এবার ভীষণ খুশি। গাবতলীতে তিন দিন ধরে আছি। কেউ কোনো রকম ঝামেলা করেনি। পুলিশ ভাইরা খোঁজ-খবর রাখছেন। সবগুলো ছাগল বিক্রি হলে মোটা অংকের লাভ হবে। আমরা পশু ব্যবসায়ীরা সরকারের কাছে ঋণী।