এসকে সিনহার বিগড়ে যাওয়ার কারণ স্পষ্ট করলেন জয়

নিউজ ডেস্ক: হঠাৎ সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করে বিতর্কিত সাবেক বিচারপতি এসকে সিনহার বিগড়ে যাওয়ার কারণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তথ্য-প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। ১২ আগস্ট তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিষয়ে তার কাছে বেশকিছু তথ্য এসেছে যা বেশ উদ্বেগজনক।

সজীব ওয়াজেদ জয় তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন, কিছু তথ্য আমার কাছে এসেছে যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। নিন্দিত সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক এসেছিলেন। সেখানে তিনি গোপনে মানবতাবিরোধী অপরাধী মীর কাসেমের ভাই মামুনের সঙ্গে দেখা করেন। আমরা জানতে পেরেছি, মামুনের কাছ থেকে তিনি বড় অংকের টাকা পেয়েছেন। টাকাটা তাকে দেওয়া হয়েছে আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলার জন্য।’

ফেসবুক পেজে দেওয়া পোস্টে জয় আরও লিখেছেন, ‘তাদের এই আলাপ দেখেছে ও শুনেছে এরকম সাক্ষীও আছে।’তিনি বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, আমাদের দেশে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র খুবই সাধারণ একটি বিষয়। এই প্রবন্ধটিতে খুব সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে আমাদের ‘কু-শীল’ সমাজ কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাতো, যদি ১৯৭৫- এর ১৫ আগস্টের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হতো।’

ষড়যন্ত্রের ক্ষেত্রে অপিরিচিত বা অজনপ্রিয় মানুষের ভূমিকা কম উল্লেখ করে জয় আরও লিখেছেন, ‘একটি ষড়যন্ত্রকে সফল করতে হলে দরকার হয় উচ্চপর্যায়ের ও ক্ষমতাবান কাউকে। যেমন সিনহা বা শহিদুল আলম।’

প্রসঙ্গত, গতবছর ১ আগস্ট উচ্চ আদালতের বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে নিয়ে ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় প্রকাশ করে ক্ষোভ ও অসন্তোষের মুখে পড়েন সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। সেসময় তারা প্রধান বিচারপতির পদত্যাগেরও দাবি তোলেন। এরই মধ্যে ২ অক্টোবর হঠাৎ করেই এক মাসের ছুটিতে যান প্রধান বিচারপতি। পরে ছুটি বাড়িয়ে তোপের মুখে বিদেশে চলে যান এবং পদত্যাগ করেন। এখন পর্যন্ত তিনি দেশে ফেরেননি।