ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান একরাম হত্যা মামলায় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ, পরবর্তী তারিখ ১৮ অক্টোবর

দৈনিক দৃষ্টান্ত আদালত রিপোর্টার : ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি একরামুল হক হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও তৎকালীন ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদের সাক্ষ্যগ্রহণ চলছে। তিনি বৃহস্পতিবার জেলা ও দায়রা জজ আমিনুল হকের আদালতে উপস্থিত হয়ে সাক্ষ্য দেন। আগামী ১৮ অক্টোবর পুণরায় তাঁর সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হবে।

ওই দিন একরামুল হক একরাম হত্যা মামলার জামিনে থাকা আসামীদের মধ্যে আবিদুল ইসলাম আবিদ ছাড়া বাকী আসামীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। ফেনী জজ আদালতের সরকারী আইনজীবী (পিপি) হাফেজ আহাম্মদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘একরাম হত্যা মামলায় ৫৯ জন সাক্ষীর মধ্যে এ পর্যন্ত ৫০ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ মামলার অভিযোগ পত্রভুক্ত ৫৬ জন আসামির মধ্যে ৪৫ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছেন। তাদের মধ্যে ২৮ জন কারাগারে, ১৭ জন জামিনে ও ১১ জন পলাতক রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ফেনী কারাগারে থাকা ২৮ জন আসামিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আদালতে হাজির করা হয়। এ ছাড়া জামিনে থাকা ১৭ জন আসামির মধ্যে আবিদ ছাড়া ১৬ জন আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। পরে ২৮ জনকে আবারও কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২০ মে ফেনী শহরের একাডেমি এলাকায় দিনের বেলায় প্রকাশ্যে একরামুল হক একরামের গাড়ির গতিরোধ করে তাকে কুপিয়ে, গুলি করে ও গাড়িসহ পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় চেয়ারম্যান একরামের ভাই রেজাউল হক জসিম বাদী হয়ে বিএনপি নেতা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ওরফে মিনার চৌধুরীসহ অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে ফেনী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।