রোহিঙ্গা ইস্যুতে ঐক্যের ডাক মিয়ানমার সেনাপ্রধানের

দৈনিক দৃষ্টান্ত ডেস্ক : রোহিঙ্গা ইস্যুতে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইং।

শনিবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে করা এক পোস্টে এ আহ্বান জানান তিনি।

জেনারেল মিন অং হ্লাইং বলেন, এই দেশে তাদের (রোহিঙ্গা) কোনো শেকড় নেই।

তিনি জানান, উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে তাদের ‘নির্মূল অভিযানের’ লক্ষ্য রোহিঙ্গা জঙ্গিদের বের করে দেওয়া যারা গত ২৫ আগস্ট পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা চালিয়েছিল।

মিয়ানমার সেনাপ্রধান বলেন, ‘তারা রোহিঙ্গা হিসেবে স্বীকৃতি চাচ্ছে। কিন্তু তারা কখনই মিয়ানমারের জাতিগত গোষ্ঠী নয়। আর আমাদের এই সত্য প্রতিষ্ঠায় এক হওয়া উচিত।’

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গত ২৫ আগস্ট পুলিশের বেশ কিছু চৌকিতে হামলার পর সেখানে অভিযান শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী। ওই অভিযান শুরুর পর থেকে প্রাণ বাঁচাতে দলের দলে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ ঢুকতে শুরু করে।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়, রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযান শুরুর পর থেকে ৪ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে ঢুকেছে।

মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ বলছে, পুলিশের চৌকিতে হামলার জন্য রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (এআরএসএ) দায়ী এবং তাদের দমন করতেই রাখাইনে সেনা অভিযান চালানো হচ্ছে। এছাড়া রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরাই রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিচ্ছে বলেও দাবি মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের।

তবে রাখাইনে সেনা অভিযান শুরুর পর সৃষ্ট সহিংস পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে পালিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে ঢোকা রোহিঙ্গাদের বেশির ভাগই বলছে, সন্ত্রাস দমনের নামে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যা করছে এবং তাদের ঘরাবাড়ি জ্বালিয়ে দিচ্ছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জাতিসংঘ বলছে, রোহিঙ্গাদের ‘জাতিগতভাবে নির্মূল’ করছে মিয়ানমার।