রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক দৃষ্টান্ত রিপোর্ট : জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ কারণে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের এবারের অধিবেশনটি বাংলাদেশের জন্য বিশেষ গুরুত্ব বহন করছে। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বাংলায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে ১৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে পৌঁছাবেন তিনি।স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন জানান, এবারের অধিবেশনে ৫২ সদস্যবিশিষ্ট বাংলাদেশ সরকারি প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমএইচ মাহমুদ আলী, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এবং মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।সংবাদ সম্মেলনে স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন বলেন, এবারের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে  ‘ফোকাস অন পিপল: স্টাভিং ফর পিস অ্যান্ড ডিসেন্ট লাইফ ফর আল অন এ সাস্টেনেইবল প্ল্যানেট।’ এটি আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক জাতিসংঘে প্রদত্ত ভাষণে বিধৃত বৈশ্বিক অভিষ্ঠ লক্ষ্যের সঙ্গে পরিপূর্ণভাবে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

তিনি বলেন, এবারের অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন অর্জন আমাদের জন্য অত্যন্ত জরুরি। গত ১৩ সেপ্টেম্বর নিরাপত্তা পরিষদ হতে এ বিষয়ে যে বক্তব্য প্রদান করা হয়েছে তা গত ৯ বছরে নিরাপত্তা পরিষদ কর্তৃক মিয়ানমার বিষয়ে প্রদত্ত প্রথম বক্তব্য। এটি সম্ভব হয়েছে আমাদের সর্বাত্মক কূটনৈতিক প্রচেষ্টার কারণে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর এবারের জাতিসংঘে উপস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে সর্বোচ্চ রাজনৈতিক পর্যায়ে এ বিষয়ে বিশ্ব সম্প্রদায়ের বৃহত্তর সমর্থন অর্জনের চেষ্টা করবো।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে এসইএ- এর বিরুদ্ধে বাংলাদেশের কঠোর নীতিগত অবস্থানকে জোরালোভাবে তুলে ধরবেন একই দিন ১৮ সেপ্টেম্বরে। এছাড়া ১৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী  স্টেফান লফভেন-এর উদ্যোগে আয়োজিত গ্লোবাল ডিল এর ফলোআপ বিষয়ক উচ্চপর্যায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী টেকসই শিল্পায়ন, শোভন ও যথোচিত কর্ম এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়নের বিষয়গুলো তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করবেন।

এদিকে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নাগরিক সংবর্ধনায় ভাষণ দেবেন আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর। নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের ম্যারিয়ট মার্কি হোটেলে এই সংবর্ধনার আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ।